আলোর সন্ধানী AloR Sondhani

"আশ্চর্যজনক পৃথিবীর নবগতদের জন্য আলোর সন্ধানী। যা দেবে আলোর সন্ধান।"

অপার বিস্ময়ের দেখা মিলবে গ্রিনল্যান্ডে (দেখুন ছবিতে)

গ্রীনল্যান্ড একটি অসাধারণ জায়গা। সে এক বিশাল প্রাকৃতিক দুনিয়া যা অনুভব করা যায় পঞ্চইন্দ্রিয় দিয়ে। এখানে গুঞ্জনরত বাতাস শিষ দিতে দিতে বয়ে চলে তুষারের আস্তরণের উপর দিয়ে। উত্তর মেরূ থেকে আগত এই বাতাস আছড়ে পড়ে পাথুরে সমুদ্র তীরে। ‘প্রকৃতিকে আমরা কখনোই নিয়ন্ত্রণ করতে পারি না, এর কাছে থাকতে পারি মাত্র’- বললেন একজন গ্রিনল্যান্ড এর অধিবাসি জেন পিটারসন। 

ইনুইট আদিবাসীরা গ্রীনল্যান্ডকে ডাকে কালালিত নুনাত নামে। এটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় দ্বীপ এবং এর ৮০ শতাংশ এলাকা বরফাচ্ছাদিত। কিন্তু তাই বলে চিন্তার কিছু নেই। গ্রিনল্যান্ড এতই বড় যে এর বাকী বরফহীন ২০ শতাংশই সুইডেনের সমান, যদিও এর খুব কম অংশই আবাদি জমি। অদ্ভুত সুন্দর দেশটির আরো কিছু আকর্ষণ সম্পর্কে জেনে নিই আসুন।
ফটোসোর্স:  america.vacationxtravel.com
ইলুসাত Ice-fjord
অধিকাংশ পর্যটক এলাকাটি দেখতে যায়। ২০০৪ সালে ইউনেস্কো এলাকাটিকে বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ হিসেবে ঘোষনা করে। বিস্তীর্ণ বরফাঞ্চল আর প্রকৃতির খেয়ালে তাদের বিভিন্ন আকৃতি যেমন আপনাকে মুগ্ধ করবে তেমনি করবে বিস্মিত।
তিমি
তিমির সাথে সাক্ষাতের প্রলোভনে পর্যটকদের শীর্ষ তালিকায় আছে গীনল্যান্ড। জুন-জুলাই হচ্ছে সবচেয়ে ভাল সময় তট রেখায় তিমির মজার মজার কান্ড দেখার জন্য। এখানে আছে হামব্যাক, মিনকে, ফিন তিমি। তবে কখনো কখনো নীল তিমিও দেখা যায়। আরও দেখা যায় নার, বেলুগা, স্পার্ম এবং পাইলট তিমি। তিমিদের এই মিলন মেলা দেখতে হলে আপনাকে ধৈর্য্য এবং শান্তি বজায় রাখতে হবে। তবে যা দেখবেন তা হবে অমূল্য।
ফটোসোর্স: water.usgs.gov
উনারটক হট স্প্রিংস
গ্রীনল্যান্ডের মত শীতল এলাকাতেও পাবেন উষ্ণতা, তবে তা শুধুই জনবসতিহীন দ্বীপ উনারটকে। এখানে স্প্রিংসগুলো গোসলের জন্য একদম সঠিক তাপমাত্রায় থাকে। ৩ টি প্রাকৃতিকভাবে উষ্ণ স্প্রিংস এসে মিশেছে চমৎকার একটি পুকুরে, যেখানে আপনি গোসলের আনন্দ উপভোগ করতে পারবেন। যদিও আপনার চারপাশেই থাকবে বিশাল বিশাল বরফখন্ড আর চমৎকার পাহাড়ের চূড়া। ইলুলিসাত থেকে ছোট্ট একটি নৌকা ভ্রমণে চলে আসতে পারবেন এখানে। তবে সারা গ্রিনল্যান্ড জুড়েই হাজারো স্প্রিংস আছে, বিশেষত ডিস্কো উপদ্বীপে।
ফটোসোর্স: christophermartinphotography.com
উত্তরীয় আলো, অরোরা বোরিআলিস
The northern light বা উত্তরীয় আলো ক পৃথিবীর সবচেয়ে বড় লাইট শো বলা হয়। যদি আপনি কখনো গ্রিনল্যান্ড যান তাহলে অবশ্যই প্রাকৃতিক এই অপূর্ব আলোকচ্ছটা কোনভাবেই মিস করবেন না। তবে এজন্য আপনাকে ভ্রমণ করতে হবে শীতে। নভেম্বার থেকে মার্চে একটি চমৎকার সুযোগ রয়েছে এই লাইট শো দেখার। আবার ডিসেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারিতেও দেখতে পাবেন কারণ তখন আকাশ পরিষ্কার থাকে।
 
সারমারমুট এস্কিমো সেটেলমেন্ট
ইলুলিসাত থেকে ২ কিলোমিটার দূরে জায়গাটিতে আপনার দেখা হবে আদিবাসি জনগোষ্ঠী এস্কিমোদের সাথে। যদিও এলাকাটি পরিত্যাক্ত, তবু এখানে এমন অনেক নিদর্শন পাবেন যা আপনাকে নিয়ে যাবে ২০০০ বছর পেছনের এক ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতির কাছে।
 
ফটোসোর্স: www.planetware.com
নুক, গ্রিনল্যান্ডের রাজধানী
 ১৬০০০ জনসংখ্যার এই শহর পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষণ। এখানে আছে গ্রীনল্যান্ড ন্যাশনাল মিউজিয়াম। দেখতে পাবেন শিকারের নানান উপকরণ, কায়াক, কার্ভিং, ভাইকিং। আরো আছে ৫০০ বছর পুরাতন নারী এবং শিশুদের মমি যা আবিষ্কৃত হয়েছিল ১৯৭৮ সালে।
ফটোসোর্স: www.baltictravelcompany.com
কুকুর স্লেডিং এবং স্নোমোবাইল ট্যুর
চমৎকার স্লেডিং এবং স্নোমোবাইল ট্যুরের অভিজ্ঞতা নিতে পারেন গ্রীনল্যান্ডে। এখানকার বন্য জীবন সত্যিই উপভোগ্য। রিইনডার, পোলার বিয়ার, সাদা লেজের ঈগল ছাড়াও অসংখ্য প্রাণী রয়েছে এখানে। কুকুর স্লেডিং এর জন্য শীতকালই সঠিক সময়।
ফটোসোর্স: www.planetware.com
থাল এবং উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় গীনল্যান্ড
১৯১০ সালে নুড রাসম্যান এবং তাঁর বন্ধুরা এই অঞ্চল এক্সপ্লোর করেন এবং পৌরাণিক দ্বীপ থুল এর নামানুসারে এর নামকরণ করেন। মনোমুগ্ধকর গঠলশৈলীর এই এলাকাটি একটি অন্যতম পর্যটক আকর্ষণ।

 

সোর্স প্রিয়.কম

Advertisements

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

Information

This entry was posted on February 25, 2016 by in 🔍সন্ধানী আলো and tagged .
%d bloggers like this: