আলোর সন্ধানী AloR Sondhani

"আশ্চর্যজনক পৃথিবীর নবগতদের জন্য আলোর সন্ধানী। যা দেবে আলোর সন্ধান।"

ব্লগ কমেন্টিংয়ের মাধ্যমে কীভাবে আয় করবেন?

ব্লগ কমেন্টিংঃ যাঁরা এসইও নিয়ে কাজ করেন, তাঁদের কাছে ব্লগ কমেন্ট হচ্ছে অফ পেজ এসইও-এর একটি অংশ। এটি ব্যাকলিংক তৈরি করার একটি গ্রহণযোগ্য মাধ্যম। আপনি আপনার সাইটের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল রেখে অন্যান্য মানসম্মত ব্লগের আর্টিকেলে কমেন্টের মাধ্যমে আপনার সাইটের জন্য ব্যাকলিংক তৈরি করতে পারেন। আপনি ব্লগ কমেন্টের মাধ্যমে খুব সহজেই অন্য একটি সাইটের সঙ্গে কানেকশন তৈরি করতে পারবেন এবং আপনার সাইটের ব্যাকলিংকের সংখ্যা বাড়াতে পারবেন।ব্লগ কমেন্টিংয়ের গুরুত্বঃ সত্যিকার অর্থে ব্লগ কমেন্টিংয়ের সুবিধাগুলো কী কী অথবা এর মাধ্যমে ট্রাফিক আসে কি না বা এসইওর দিক থেকে এর গুরুত্ব কতটুকু, এই নিয়ে নিচে আলোচনা করা হলো :ব্যাকলিংকএটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়, যে কারণে অনেকেই ব্লগ কমেন্টিং পচ্ছন্দ করেন। আপনাদের অনেকেরই অভিযোগ থাকে যে এসইওর অন পেজ সঠিকভাবে করার পরও আপনার সাইটে কেন ট্রাফিক পাচ্ছেন না। এর একটি কারণ হতে পারে, আপনার সাইটটি সার্চ ইঞ্জিনের কাছে অতটা অথরিটি লাভ করতে পারেনি, যতটা ভালো র‍্যাঙ্কিংয়ের জন্য দরকার।যখন আপনি অন্যান্য ব্লগে কমেন্ট করবেন, তখন এটির মাধ্যমে ওই সাইটের সঙ্গে একটি লিংকে আবদ্ধ হন। যদি এর মধ্যে কিছু ডুফলো লিংক থাকে, তাহলে এটি আপনার সাইটের জন্য কিছু অতিরিক্ত সুবিধা দিয়ে থাকে। যার ফলে আপনার পেজগুলো দ্রুত সার্চ ইঞ্জিনে ইনডেক্স হওয়ার  সম্ভাবনা থাকে।ভিজিটরঃ আপনি সঠিকভাবে ব্লগ কমেন্টিং করতে পারলে এর থেকে কিছু ভিজিটর আসার একটা সম্ভাবনা থাকে। কিন্তু আপনার কমেন্টটি যদি এমন হয় ‘Thank you!’ অথবা ‘Really nice post’ জাতীয়, তাহলে এমন কমেন্ট থেকে কিছুই লাভ হবে না।ব্লগ কমেন্টিংয়ের ক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে :

  • আপনি যে ব্লগে কমেন্ট করছেন, এর সঙ্গে আপনার দেওয়া সাইটের লিংকটি কতটা সংগতিপূর্ণ।
  • সব সময় চেষ্টা করবেন সবার প্রথমে কমেন্ট করতে।
  • এমন যদি হয় কেউ কোনো পোস্টে কোনো প্রশ্ন করেছে, তাহলে আপনি এর সঙ্গে দরকারি কোনো তথ্য যোগ করতে চাইলে তা কমেন্টের মাধ্যমে করতে পারেন।
  • চেষ্টা করবেন কমেন্টটিকে অর্থবহ করার জন্য। এর জন্য অন্তত চার-পাঁচ লাইনের একটি কমেন্ট লিখুন।
  • কমেন্টে আপনি যে ই-মেইল দিচ্ছেন, তার যেন প্রোফাইল ইমেজ দেওয়া থাকে।
  • আপনি কমেন্ট করার সময় আপনার নামেই দেওয়া ভালো, নিজের ব্র্যান্ড প্রমোশন করার জন্য। যদিও অনেকে এটি পছন্দ করেন না। কারণ এটিকে অনেক সময় স্প্যামিং হিসেবে গণ্য করা হয়। আবার যদি আপনার কমেন্টটি নাম ছাড়া হয়ে থাকে, তবে এর বিষয়বস্তু বা লেখা ইনফরমেটিভ হয়, তাহলে আপনার কমেন্টটি অবশ্যই গ্রহণযোগ্যতা পাবে।

অন্য ব্লগারদের সঙ্গে পরিচিত হওয়াঃ কমেন্ট করার মাধ্যমে আপনি অন্য ব্লগারদের সঙ্গে একটি ভালো সম্পর্ক তৈরি করতে পারেন। যদিও এটি সময়ের বিষয়, কারণ আপনাকে নিয়মিত কমেন্ট করতে হবে এবং সাইট অ্যাডমিন ও কো-ব্লগারদের নজরে আসতে হবে। তাহলে আপনি একটি দীর্ঘ সময় এই কানেকশনে কাজ করতে পারবেন।সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনঃ ব্লগ কমেন্টিংয়ের মাধ্যমে আপনি আপনার এসইও কাজকে আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন। ভালো মানের ব্লগ কমেন্টিং অফ পেজ এসইওর অনেক সাহায্য করে থাকে। বিশেষ করে চেষ্টা করবেন ডুফলো ব্যাকলিংক পেতে। তাহলে আপনি সার্চ ইঞ্জিন থেকে কিছুটা সুবিধা পাবেন। কেননা, যখন সার্চ ইঞ্জিন ক্রলার ওই পেজটিতে আসবে এবং আপনার ডুফলো লিংটি পাবে, তখন সে এই লিংক এর মধ্য দিয়ে আপনার পেজে যাবে এবং আপনার পেজটি যদি ইনডেক্স না থাকে, সেটিকে ইনডেক্স করবে এবং কিছু লিংক জুস আপনার পেজে পাস করবে।সাধারণত একটি লিংকের দুটি অ্যাট্রিবিউট থাকে—ডুফলো ও নোফলো। ডুফলো লিংকের মাধ্যমে লিংক জুস (একটি লিংকের পাওয়ারকে বোঝায়) পাস হয়।<a href=www.example.com>Do Follow</a>আর যদি এটি নোফলো হয়, তাহলে গুগল বট এই লিংকের মধ্য দিয়ে আপনার পেজে আসবে না এবং লিংক জুস পাস হবে না।<a href=www.example.com rel=”nofollow”>No Follow</a>কিন্তু তাই বলে এই নয় যে, নোফলো লিংকের কোনো প্রয়োজন নেই। আপনার উচিত সাইটে ডুফলো ও নোফলো দুই ধরনেরই ব্যাকলিংক তৈরি করা। কেননা, গুগলের মতে একটি সাইটের ব্যাকলিংক প্রোফাইলে এখন শুধু ডুফলো ব্যাকলিংক থাকবে সেটি নয়, পাশাপাশি নোফলো লিংক তৈরি করতে হবে।কীভাবে একটি ভালো ব্লগ খুঁজে বের করবেন ব্লগ কমেন্টিংয়ের জন্য?প্রথমেই আপনাকে যে কাজটি করতে হবে তা হচ্ছে, একটি ভালো মানের ব্লগ খুঁজে বের করা। ভালো মানের ব্লগ বলতে :

  • সক্রিয় ব্লগ হতে হবে।
  • জনপ্রিয় হতে হবে।
  • ভালো মানের কিছু লেখক সেখানে থাকতে হবে।
  • ব্লগের পেজ র‌্যাংক ভালো হতে হবে।
  • যদি ডুফলো হয়, তাহলে অনেক ভালো। তবে উপরোক্ত গুণাবলি থাকলে নোফলো করতে পারেন।

আপনি গুগল থেকে সার্চ করে ব্লগগুলো খুঁজে বের করবেন। এ ক্ষেত্রে আপনি এসব কমান্ড ব্যবহার করতে পারেন সহজে সার্চ করার জন্য।

  • site:.com inurl:blog “niche” “leave a comment”
  • “Add comment” Your Keywords
  • “Post comment” Your Keywords
  • “Write comment” Your Keywords
  • Your Keywords “leave a comment” / “leave comment”

এ ছাড়া আপনি চাইলে বিভিন্ন টুলের সাহায্যে এই কাজটি করতে পারেন। যেমন :http://dropmylink.com/  এখানে আপনি ফ্রি সাইন আপ করার পরে খুব সহজেই ব্লগ কমেন্ট করার জন্য বিভিন্ন ব্লগের অ্যাড্রেস পেয়ে যাবেন।এ ছাড়া আপনি http://linksearching.com/ এর মাধ্যমেও সার্চ করে ব্লগগুলো খুঁজে বের করতে পারবেন।কীভাবে বুঝবেন যে ব্লগটি ডুফলো/নোফলো লিংক দেবে?

কোনো ব্লগে কমেন্ট দেওয়ার আগে দেখে নিন, ব্লগটি কোন ধরনের লিংক আপনাকে করতে দেবে। এটা বোঝার উপায় হচ্ছে, আপনি গুগল ক্রোম ব্রাউজারটি ওপেন করুন এবং সেখান থেকে Settings > Extensions > Get more extensions এ ক্লিক করুন। এবার বাঁ পাশের সার্চ বক্সে লিখুন seoquake > ADD TO CHROME > Add extension-এ ক্লিক করুন। এটি আপনার ক্রোম ব্রাউজারে ADD হয়ে যাবে।এর পর আপনি আপনার ব্রাউজারের ওপরে ডান পাশে seoquake-এর আইকনের ওপরে ক্লিক করুন এবং Highlight no-follow এটি চিহ্নিত করুন।নিচে আমি একটি ব্লগের কমেন্ট সেকশনের চিত্র দিয়েছে, যেটি seoquake ADD করার আগের অবস্থা।এবার seoquake ADD করার পরে আমরা বুঝতে পারব, এই ব্লগ সাইটটি কোন ধরনের ব্যাকলিংক দিচ্ছে।লক্ষ করুন, এখন এখানে লিংকের ওপরে একটি কাটা চিহ্ন দেখা যাচ্ছে, ইংরেজিতে যাকে বলা হয় (A link with a Strike Mark)। যার অর্থ এটি একটি নোফলো লিংক।এখন যদি এমন হয় যে, আপনি সেখানে প্রথম গেছেন কমেন্ট করতে, এর আগে আর কেউ কমেন্ট করেনি, তাহলে কীভাবে বুঝবেন?সহজ উপায় হচ্ছে, এই ব্লগের আগের কিছু লেখা দেখুন। যেগুলোতে কেউ একজন কমেন্ট করেছে। তাহলেই আপনি বুঝতে পারবেন, এখান থেকে আপনি কী ধরনের ব্যাকলিংক পাবেন।মার্কেটপ্লেসে এর চাহিদা কেমন? বর্তমানে ব্লগ কমেন্টিংয়ের কাজের চাহিদা রয়েছে, কিন্তু এর পারিশ্রমিক এর মূল্য আগের মতো নেই। আগে একটি সময় এমন ছিল যে আপনি খুব সহজেই একটি ডুফলো ব্যাকলিংক পেয়ে যেতেন এবং এর জন্য হয়তো আপনি ১ থেকে ১ দশমিক ৫ ডলার পেয়েছেন (আমি নিজেই এমন রেটে অনেক ব্লগ কমেন্টের কাজ করেছি, যেখানে একটি আর্টিকেল পেজের পেজ র‍্যাঙ্কয়ের ওপর ভিত্তি করে ১–৩ ডলার পর্যন্ত পেয়েছি), তবে সেই সোনালি দিন এখন আর নেই । এখনকার সময় ভিন্ন। আপনি নিচে দেওয়া কাজ দুটির দিকে লক্ষ করলেই বুঝবেন, এই কাজের বর্তমান রেট কেমন।ওপরের চিত্রটি অনেক জনপ্রিয় একটি মার্কেটপ্লেসের। এর নাম Fiverr আর নিচের ছবিটি আরেকটি জনপ্রিয় মার্কেটপ্লেসের, যার নাম Upwork। তবে আপনি যদি বুঝে থাকেন কীভাবে দ্রুততার সঙ্গে ব্লগ কমেন্ট করা যায়, তাহলে আপনিও এ কাজের মাধ্যমে আয় করতে পারবেন।কেননা, এখনো বাজারে একাজের চাহিদা রয়েছে। ব্লগ কমেন্টিংয়ের জন্য আপনাকে অবশ্যই কিছু ইংরেজি জানতে হবে। কেননা, আপনার লেখা কমেন্টটি যদি সঠিক না হয় বা ব্যাকরণগত ভুল থাকে, তাহলে অ্যাডমিন কখনই সেটি পাবলিশ করবে না। তাই চেষ্টা করবেন ব্লগ কমেন্টটি সঠিক, সুন্দর এবং ভাষাগত ত্রুটি মূক্ত রাখতে।

Advertisements

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: